৮৬ শতাংশ ব্যাংকের মুনাফা বৃদ্ধি

চলতি বছরের প্রথমার্ধের ব্যবসায় (জানুয়ারি-জুন ২১) শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের মুনাফায় উল্লম্ফন হয়েছে। এসময় ৮৬ শতাংশ ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) বেড়েছে। যার পরিমাণ ২০১৯ সালে ৮০ শতাংশ, ২০১৮ সালে ৫০ শতাংশ ও ২০১৭ সালে ৬২ শতাংশ ছিল।

ব্যাংকগুলোর ২০২১ সালের প্রথমার্ধের অনিরীক্ষিত সমন্বিত আর্থিক হিসাব থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৩১টি ব্যাংকের মধ্যে ২৮টির চলতি বছরের প্রথমার্ধের আর্থিক হিসাব প্রকাশ করা হয়েছে। এরমধ্যে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২০২১ সালের প্রথমার্ধে ২৪টি বা ৮৫.৭১ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস বেড়েছে, ৩টি বা ১০.৭১ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস কমেছে এবং ১টি বা ৩.৫৭ শতাংশ ব্যাংকের অপরিবর্তিত রয়েছে।

এখনো ঢাকা ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক ও রূপালি ব্যাংকের প্রথমার্ধের আর্থিক হিসাব নিয়ে পর্ষদ সভা হয়নি। এছাড়া ব্যাংকগুলোর পক্ষ থেকে এ জন্য তারিখও নির্ধারণ করা হয়নি।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সাবেক পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমন বিজনেস আওয়ারকে বলেন, ব্যাংক খাতের মুনাফায় উত্থান শেয়ারবাজারের জন্য সুসংবাদ। এতে হয়তো বিনিয়োগকারীদের মনে কিছুটা হলেও আস্থা ফিরে আসবে। যা শেয়ারবাজারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। আর ব্যাংক খাত যেহেতু শেয়ারবাজারের সবচেয়ে বড় খাত, তাই এই খাতের উত্থান-পতনে সূচকে বড় প্রভাব পড়ে।

২০২১ সালের প্রথমার্ধে সবচেয়ে বেশি হারে ইপিএস বেড়েছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের। আগের বছরের তুলনায় ব্যাংকটির ইপিএস বেড়েছে ২৮৩ শতাংশ। এরপরে ২২৯ শতাংশ বেড়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে প্রাইম ব্যাংক। আর ১২৭ শতাংশ বেড়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে এনআরবিসি ব্যাংক।

এদিকে সবচেয়ে বেশি ইপিএস হয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের। আগের বছরের থেকে ৪ শতাংশ বেড়ে ব্যাংকটির ইপিএস হয়েছে ৩.৫৭ টাকা। এরপরে যমুনা ব্যাংকের ইপিএস হয়েছে ২.৬৪ টাকা। আর ২.৫৬ টাকা করে নিয়ে তৃতীয় স্থানে যৌথভাবে রয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক ও ইস্টার্ন ব্যাংক।

এছাড়া এ বছরের প্রথমার্ধে ২ টাকার উপরে ইপিএস হয়েছে ট্রাস্ট ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ও মার্কেন্টাইল ব্যাংকের।

নিম্নে ইপিএস বৃদ্ধি পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম ২০২১ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস (টাকা) ২০২০ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস (টাকা) বৃদ্ধির হার (শতকরা)
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ০.২৩ ০.০৬ ২৮৩%
প্রাইম ব্যাংক ১.৮১ ০.৫৫ ২২৯%
এনআরবিসি ব্যাংক ১.১১ ০.৪৯ ১২৭%
ব্র্যাক ব্যাংক ১.৮৫ ০.৮৪ ১২০%
মার্কেন্টাইল ব্যাংক ২.০২ ০.৯৭ ১০৮%
দি সিটি ব্যাংক ২.০৬ ১০৬%
এবি ব্যাংক ০.৩১ ০.১৭ ৮২%
প্রিমিয়ার ব্যাংক ১.৫৮ ০.৯০ ৭৬%
শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক ১.৭২ ৭২%
সাউথইস্ট ব্যাংক ২.৫৬ ১.৫৯ ৬১%
ওয়ান ব্যাংক ১.৪৬ ০.৯৩ ৫৭%
ইস্টার্ন ব্যাংক ২.৫৬ ১.৬৫ ৫৫%
আইএফআইসি ব্যাংক ০.৯১ ০.৫১ ৫৪%
ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ১.০২ ০.৭২ ৪২%
আলআরাফাহ ব্যাংক ১.১৬ ০.৮৪ ৩৮%
যমুনা ব্যাংক ২.৬৪ ২.০৭ ২৮%
ব্যাংক এশিয়া ১.৭৫ ১.৩৭ ২৮%
পূবালী ব্যাংক ১.৮০ ১.৪৪ ২৫%
উত্তরা ব্যাংক ১.৭৯ ১.৪৪ ২৪%
এনসিসি ব্যাংক ১.৪৩ ১.১৭ ২২%
ট্রাস্ট ব্যাংক ২.৪২ ২১%
স্যোশাল ইসলামী ব্যাংক ০.৫৫ ০.৪৮ ১৫%
ইসলামী ব্যাংক ২.০৮ ১.৯৪ ৭%
ডাচ-বাংলা ব্যাংক ৩.৫৭ ৩.৪২ ৪%

.

আলোচিত সময়ে সবচেয়ে বেশি ইপিএস কমেছে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের। ব্যাংকটির ৩৪ শতাংশ ইপিএস কমেছে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৯ শতাংশ কমেছে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের। আর ১১ শতাংশ কমে ৩য় স্থানে রয়েছে এক্সিম ব্যাংক।

নিম্নে ইপিএস হ্রাস পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম ২০২১ সালের  প্রথমার্ধের ইপিএস ২০২০ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস কমার হার (শতকরা)
ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক ০.৫৪ ০.৮২ (৩৪%)
মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ১.০৮ ১.৩৪ (১৯%)
এক্সিম ব্যাংক ০.৮৯ (১১%)

 

অন্যান্য বছরের প্রথমার্ধের ন্যায় ২০২১ সালের প্রথমার্ধেও আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকের লোকসান হয়েছে। তবে এ বছর ব্যাংকটির লোকসানে কোন পরিবর্তন আসেনি। আগের বছরের সমান লোকসান হয়েছে।

নিম্নে লোকসানি ব্যাংকের তথ্য তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম ২০২১ সালের  প্রথমার্ধের ইপিএস ২০২০ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস হ্রাস-বৃদ্ধির হার (শতকরা)
আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক (০.৩২) (০.৩২) ০০%

সূত্র : বিজনেস আওয়ার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here