৪২ লক্ষ টাকায় বিক্রি মাশরাফির ব্রেসলেট

ডেস্ক রিপোর্ট : করোনায় বিপর্যস্তদের মানুষদের জন্য শুরু থেকেই কাজ করে যাচ্ছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। এককভাবে এবং ফাউন্ডেশন গড়ে কাজ করে যাচ্ছেন খেটে খাওয়া বিপাকে পরা মানুষদের জন্য। এরই অংশ করোনার বিপক্ষে যুদ্ধের রসদ যোগাতে মাশরাফি নিলামে তুলেছিলেন তাঁর প্রয় ব্রেসলেটটি। ৪২ লক্ষ টাকায় বিক্রি হয় তাঁর সেই ব্রেসলেটটি।

নিলাম সংস্থা অ্যাকশন ফর অকশনের মাধ্যমে ম্যাশ নিলামে তুলেছিলেন তাঁর প্রিয় সেই ব্রেসলেটটি। রবিবার, ১৭ মে সেই নিলাম অনুষ্ঠানের লাইভে এসেছিলেন মাশরাফি। ভক্তদের জানিয়েছেন তাঁর মজার মজার কিছু ঘটনা।

লাইভের সময় সেখানেই তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, যদি আপনি আলাদিনের চেরাগ পান তাহলে সেই চেরাগের দৈত্যের কাছে কোন তিনটি জিনিস চাইবেন। মাশরাফি বলেন, যদি পারতাম তাহলে শৈশবে ফিরে যেতে চাইতাম। সেখানে স্কুল, স্কুলের বন্ধুদের সঙ্গে খেলাধুলা, আড্ডাবাজি- এগুলোতে ফিরে যেতে চাইতাম। দ্বিতীয় যেটা চাইতাম, সেটা হচ্ছে ক্যারিয়ারের শুরুতে যদি ফিরে যেতে পারতাম! আলহামদুলিল্লাহ এমনিতেই ক্যারিয়ারে যা অর্জন করেছি, সেটা অনেক। তবুও ক্যারিয়ারের শুরুটায় ফিরে যেতে পারলে আরও ভালোভাবে নিজেকে গুছিয়ে নিতে পারতাম। তৃতীয়ত যেটা, সেটা হচ্ছে পরিবারের কাছেই ফিরে যেতে চাই।

মাশরাফির এই উত্তরের প্রেক্ষিতে অনুষ্ঠানের সঞ্চালকদের একজন বলেন, আমরা গোপনসূ্ত্রে জানতে পেরেছি আপনাকে টারজান বলা হতো। মাশরাফি কি বলবেন আপনি এ নিয়ে? মাশরাফি বলেন, হ্যাঁ, আমাকে তুলসি বাগানের টারজান বলা হতো। কারণ ওই বাগানে আমরা খুব খেলতাম। বেড়াতাম। ওই বাগানের আম, কাঠাল, লিচু এগুলো নিজের মনে করতাম। ওই বাগানটা ছিল অনেক বড়। মালিক বাগানটা বিক্রি করে দিয়ে চলে গেছেন ইন্ডিয়ায়। ওই বাগানের সব কিছু নিজের মনে হতো। সেখানে ঘুরে বেড়াতাম। এ কারণে অনেকেই বলত, তুলসি বাগানের টারজান।

মাশরাফির নিলামে তোলা ব্রেসলেটটি কিনে নিয়েছে বাংলাদেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন বাংলাদেশ লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স কোম্পানি অ্যাসোসিয়েশন (বিএলএফসিএ)। তাদের পক্ষে নিলামে অংশ নেন আইপিডিসি’র চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম। সেই সঙ্গে ব্রেসলেটটি কিনে মাশরাফিকেই উপহার দেবার ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here