৩ মার্চেন্ট ব্যাংককে সতর্ক করার সিদ্ধান্ত

স্টাফ রিপোর্টার : বেধেঁ দেওয়া সময়ের মধ্যে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ারবাজারে নতুন কোম্পানি আনতে ব্যর্থ হওয়ায় ৩টি মার্চেন্ট ব্যাংককে সতর্ক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসইসি। মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো হলো- বেঙ্গল ইনভেস্টমেন্ট, এক্সিম ইসলামী ইনভেস্টমেন্ট এবং পিএলএফএস ইনভেস্টমেন্ট।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, বেঙ্গল ইনভেস্টমেন্ট ২০১২ সালে এবং এক্সিম ইসলামী ইনভেস্টমেন্ট ২০১০ সালে সর্বশেষ ইস্যু এনেছে। এছাড়া পিএলএফএস ইনভেস্টমেন্ট গত ৩ বছরেও একটি ইস্যু আনতে পারেনি। অথচ প্রতি ২ বছরে কমপক্ষে ১টি আইপিওর জন্য ফাইল জমা দেওয়ার বিধান রয়েছে।

এ কারণে সম্প্রতি ওই ৩টি মার্চেন্ট ব্যাংকের কাছে ইস্যু না আনার কারণ জানতে চেয়ে ব্যাখ্যা চায় বিএসইসি। প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের ব্যাখাও দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় বিএসইসি সার্বিক দিক বিবেচনা করে ৩টি মার্চেন্ট ব্যাংকে সতর্ক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তথ্য মতে, শেয়ারবাজারে নতুন নতুন কোম্পানির তালিকাভুক্তির লক্ষ্যে মার্চেন্ট ব্যাংককে নিবন্ধন দিয়ে থাকে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। আর সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যান্ড পোর্টফোলিও ম্যানেজার) রুলস, ১৯৯৬ অনুযায়ী, মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোকে ২ বছরে ন্যূনতম ১টি আইপিও ইস্যু জমা দেওয়ার বিধান রয়েছে। তবে গত ২ বছরে নিবন্ধিত ওই ৩টি মার্চেন্ট ব্যাংক পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির জন্য কোনো কোম্পানির প্রস্তাব বিএসইসিতে জমা দেয়নি। ফলে মার্চেন্ট ব্যাংক ৩টি সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যান্ড পোর্টফোলিও ম্যানেজার) রুলস, ১৯৯৬ এর রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট ইস্যুর সেকশন ১১ লঙ্ঘন করেছে।

এ বিষয়ে এক্সিম ইসলামী ইনভেস্টেমেন্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আবু হেনা মো. মহসিন বলেন, ‘শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির লক্ষ্যে কোম্পানিগুলোর কিছু চাওয়া-পাওয়া থাকে। ওই চাওয়া-পাওয়া পূরণ করতে না পারলে কোম্পানিগুলো ইস্যু ম্যানেজার পরিবর্তন করে ফেলে। এরকম বিভিন্ন কারণে শেয়ার বাজারে আইপিও ইস্যু আনা সম্ভব হয়নি। তবে ভালো আইপিও ইস্যু আনতে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএসইসির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলে, ‘ইস্যু ব্যবস্থাপনার অনুমোদন থাকার পরও কিছু মার্চেন্ট ব্যাংক পাবলিক ইস্যু ব্যবস্থাপনায় অনাগ্রহী। তারা শুধু পোর্টফোলিও ব্যবস্থাপনা ও অবলেখনে আগ্রহী। তাই এ বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছে বিএসইসি। যেসব মার্চেন্ট ব্যাংক ২ বছরের মধ্যে ১টি ইস্যু আনতে পারেনি, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here