৩ প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম ক্ষতিয়ে দেখতে কমিটি গঠন

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড (বিআইএফসি), পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড-এই তিনটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম-দুর্নীতির ঘটনায় দায়ীদের চিহ্নিত করার পাশাপাশি দায় নিরূপণ করতে ৭ সদস্যের কমিটি করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

২০০২ সাল থেকে এসব আর্থিক প্রতিষ্ঠান দেখভালের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের দায়ও নিরূপণ করবে এই কমিটি। এর আগে বাংলাদেশের ব্যাংকের পক্ষ থেকে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটির সুপারিশ করা হয়েছিল। মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি তার সাথে সাবেক সচিব ও একজন বিচারককে যুক্ত করে ৭ সদস্যের কমিটি চূড়ান্ত করে দেয় বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশিদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এ কে এম সাজেদুর রহমান খানকে সভাপতি ও বৈদেশিক মুদ্রা পরিদর্শন বিভাগের উপমহাব্যবস্থাপক মো. সারোয়ার হোসেনকে কমিটির সদস্য সচিব করা হয়েছে। কমিটিতে সদস্যরা হলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক এ কে এম ফজলুর রহমান, ফাইনান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক মো. কবির আহাম্মদ, ব্যাংক পরিদর্শন বিভাগ-৪ এর মহাব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমীন। এছাড়া কমিটিতে আদালতের যুক্ত করা দু’জন হলেন- সাবেক জেলা ও দায়রা জজ মহিদুল ইসলাম ও সাবেক সচিব নুরুর রহমান।

আদালত আদেশে আরও বলা হয়, এই তিন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের লেনদেনের সাথে কমিটির কোনো সদস্য জড়িত থাকলে বা সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে সেই সদস্যকে দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখা হবে।

এই কমিটি তদন্তের প্রয়োজনে এই তিন আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ যে কোনো প্রতিষ্ঠানের কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট যে কোনো প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here