৩২ হাজার বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার : নবায়ন ফি না দেওয়ায় বিনিয়োগকারীদের প্রায় ৩২ হাজার বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের শেয়ার সংরক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশ (সিডিবিএল)- এর তথ্যমতে, ১ সেপ্টেম্বর বিনিয়োগকারীদের বিও অ্যাকাউন্ট ছিলো ২৩ লাখ ১৮ হাজার ২৭৪টি। সেখান থেকে ৩১ হাজার ৯২০টি বিও হিসাব কমে দাঁড়িয়েছে ২২ লাখ ৮৬ হাজার ৩৫৪টি।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিও অ্যাকাউন্টের বার্ষিক ফি না দেওয়ায় নতুন করে ৩২ হাজার বিও বন্ধ হয়েছে। তবে পুঁজিবাজারের অবস্থা আরো খারাপ হলে বিও হিসাব বন্ধের পরিমাণ আরো বাড়তো।

সিডিবিএলের কর্মকর্তারা জানান, কোভিড-১৯ এর কারণে বিও হিসাবের চার্জের সময় জুালাই থেকে বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করা হয়। নির্ধারিত সময়ে ফি জমা না দেওয়ায় এই বিও হিসাবগুলো বন্ধ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালক শাকিল রিজভী একটি অনলাইন নিউজপোর্টালকে বলেন, ৩০ সেপ্টেম্বর বিও অ্যাকাউন্ট নবায়নের শেষ সময় ছিলো। নির্ধারিত সময়ে বিও অ্যাকাউন্ট নবায়ন না করায় বিও হিসাবগুলো বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নতুন কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন, পানির দামে থাকা কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দাম বৃদ্ধি এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের বেশ কিছু উদ্যোগের ফলে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে পুঁজিবাজার। আর তাতে বিনিয়োগকারীরা নতুন করে বাজারে ঝুঁকছেন।

তা না হলে বিগত বছরগুলোর মতই এক লাখ কিংবা তার চেয়ে কম বেশি বিও হিসাব বন্ধ হতো বলে মনে করেন ডিএসইর পরিচালক।

সিডিবিএলের তথ্য মতে, পহেলা সেপ্টেম্বর বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ছিলো ২৩ লাখ ১৮ হাজার ২৭৪টি। গত এক মাসে বিও হিসাবের সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ২২ লাখ ৮৬ হাজার ৩৫৪টিতে।

এর মধ্যে পুরুষ বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবের সংখ্যা ১৬ লাখ ৭৯ হাজার ৮৫৬টি। আর নারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ৫ লাখ ৯৩ হাজার ১০৯টি। এছাড়া বিভিন্ন কোম্পানির বিও হিসাব ১৩ হাজার ৩৮৯টি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here