৩২ কিলোমিটার গতি কাজে লাগাচ্ছেন বাংলাদেশের মাহবুবুর

‘সুফিলের সঙ্গে দৌড়ে পারা নেপালের ফুটবলারের পক্ষে সম্ভব না’

গর্বের সঙ্গে প্রেস বক্সে কথাটি বললেন এক সাংবাদিক। নিয়মিত যাঁরা ফুটবল দেখেন, তাঁদের এর সঙ্গে দ্বিমত প্রকাশের সুযোগ নেই। পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই মাহবুবুর রহমান সুফিলের নামের সঙ্গে লেগে গেছে ‘দুরন্ত গতির ফরোয়ার্ড’ উপমা।

গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেমের বা ‘জিপিএস’-এর তথ্য অনুযায়ী ঘণ্টায় ৩২.০৪ কিলোমিটার গতিতে দৌড়াতে পারেন মাহবুবুর। ২০১৮ সালে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘে খেলার সময় জিপিএস ব্যবহার করে তাঁর এই গতির পরিসংখ্যানটি বের করেন তখনকার আরামবাগের ও বর্তমানে চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ মারুফুল হক।

দুই বছরে জাতীয় দল ও বসুন্ধরা কিংসের উন্নত মানের পরিবেশে গতির উন্নতি আরও হয়েছে কি না, তা নিশ্চিত করে বলা যায় না, তবে কমেনি এ কথা বলাই যায়।

সুযোগ পেলেই সেই গতি কাজে লাগাচ্ছেন ২২ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। নেপালের বিপক্ষে কাল বাংলাদেশের ২-০ গোলের জয়ের পর মাহবুবুরের গোলটি নিয়ে চর্চা চলছে ফেসবুকে। প্রায় প্রতিটি ক্যাপশনেই জুড়ে দেওয়া হচ্ছে—দ্রুতগতির সঙ্গে দুর্দান্ত ফিনিশিং। আরও একটি কথা যোগ করতে হবে—‘ফাইটার’।

মাঝমাঠের ওপরে নেপাল ডিফেন্ডারের পা থেকে বলটি কেড়ে নেন তিনিই। এরপর বদলি মিডফিল্ডার সোহেল রানাকে ব্যাক পাস করেই সেই যে মাঝমাঠের কাছাকাছি থেকে দিলেন ভোঁ দৌড়, আর মাহবুবুরকে ধরে কে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here