রয়েল টিউলিপের আইপিওতে ৪৯.৬৬ গুণ বেশি আবেদন, আইপিও লটারি ২৩ মে

স্টাফ রিপোর্টার : পাঁচ তারকা হোটেল রয়েল টিউলিপের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) ৭৪৫ কোটি টাকার আবেদন জমা পড়েছে। ১৫ কোটি টাকার আইপিও’র বিপরীতে যা ৪৯.৬৬ গুন বেশি। কোম্পানির আইপিওতে জেনারেল কোটায় ৯৬ গুন আবেদন জমা পড়েছে। কোম্পানি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিকে, কোম্পানির আইপিও লটারির ড্র আগামী ২৩ মে অনুষ্ঠিত হবে। ওই দিন সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত এজিবি কলোনীতে আইপিও ড্র অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে গত ২৩ এপ্রিল থেকে ৬ মে পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওতে আবেদন জমা নেয়া হয়েছে। হোটেলটির সত্ত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেড।

জানা গেছে, সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেড অভিহিত মূল্য ১০ টাকা দরে দেড় কোটি শেয়ার ইস্যু করে আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত ১৫ কোটি টাকা দিয়ে কোম্পানিটি ব্যবসা সম্প্রসারণ করবে। ইন্টেরিয়র ফিনিশিং অ্যান্ড ফার্নিচার, জমি ক্রয় এবং আইপিও খরচ বাবদ মূলত ব্যয় হবে এই অর্থ।

গত তিন বছরের আর্থিত প্রতিবেদন অনুসারে ভারিত গড় শেয়ার প্রতি আয় (Weighted Average EPS) ৪১ পয়সা।

সর্বশেষ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর,১৮ সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ১২ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে(এনএভি) ১০ টাকা ৬১ পয়সা।

এদিকে, ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫৩ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৪৮ পয়সা।

সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেড ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে বানকো ফিন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড এবং প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৯ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬৭৬তম সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here