স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসইতে) ১৮ নভেম্বর, রোববার সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে টেক্সটাইল খাতে। মার্কেটের মোট লেনদেন আজ গত কালকের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। তবে টেক্সটাইল খাতের লেনদেন গত দিনের তুলনায় আজ প্রায় ৭.৩% বেড়েছে। বাজারে মোট লেনদেনের দিক থেকে ১৮.২৯% লেনদেন নিয়ে খাতটি ডিএসইতে শীর্ষে অবস্থান করছে। ডিএসইতে গতকাল এই খাতের অবদান ছিল ১৬.৭৮% যা আজকের দিনের তুলনায় ১.৫১% কম।

এই খাতে আজ সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে সায়হাম কটন মিলস লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটির আজ মোট ১৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যা মোট লেনদেনের প্রায় ৩.০৪%। পাশাপাশি গত কালকের তুলনায় শেয়ারটির মূল্য ৩.২৪% বৃদ্ধি পেয়েছে।

এই খাতে আজ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটির আজ ১১ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যা মোট লেনদেনের ২.০৪%। এদিকে শেয়ারটির মূল্য আজ ২.২৮% বৃদ্ধি পেয়েছে।

লেনদেনে অবদানের ভিত্তিতে দেখলে আজকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে ছিল যথাক্রমে ফার্মা এবং পাওয়ার খাত।

ফার্মাসিউটিক্যাল এন্ড কেমিক্যাল খাত: লেনদেনের ভিত্তিতে এই খাতের অবদান ছিল আজ ১৭.৯৭% যা গত দিনের চেয়ে ১.৬% বেশি। এই খাতে আজ সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে ওয়াটা কেমিক্যালস লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটির আজ ১৩ কোটি ৭২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যা মোট লেনদেনের প্রায় ২.৪৬%। তাছাড়া শেয়ারটির মূল্য গত দিনের চেয়ে ৪.৯৪% বৃদ্ধি পেয়েছে।

ফুয়েল ও পাওয়ার খাত: মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৭.২৬% যা গত দিনের চেয়ে ৩.৩৯% কম। এই খাতে আজ সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটির আজ ৩৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যা মোট লেনদেনের ৭.১১%। এটি আজ টাকার অঙ্কে সর্বোচ্চ লেনদেনকারী শেয়ার। এদিকে গতদিনের তুলনায় শেয়ারটির দাম ০.০৩% হ্রাস পেয়েছে।

টাকার অঙ্কে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লেনদেনকারী শেয়ার হচ্ছে খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড। কোম্পানিটির আজ ৩৪ কোটি ২৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যা মোট লেনদেনের ৬.১৬%।

মূলত এই দুটি কোম্পানিই পাওয়ার খাতকে প্রবলভাবে সক্রিয় রেখেছে।

এদিকে আজ ফার্মা খাতের ৩১টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৬টির, কমেছে ১৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১টি কোম্পানি। ফুয়েল ও পাওয়ার খাতের ১৭টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৫টির, কমেছে ১১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। টেক্সটাইল খাতের ৪৬টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ২৩টির, কমেছে ১৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫টি কোম্পানির।

আরও দেখুন-

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে যে তিন খাত

তৃতীয় প্রান্তিকে ফাইন্যান্স খাতে ৫৪% কোম্পানির ইপিএস বৃদ্ধি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here