রেমিট্যান্সের প্রণোদনা আরো সহজ হলো

বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠালে ২ শতাংশ হারে যে প্রণোদনা দিচ্ছে সরকার, তা পাওয়া আরো সহজ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংক রেমিটারের কাগজপত্র নিজ দায়িত্বেই যাচাই করে দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রণোদনার অর্থ ছাড় করার জন্য রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংকের কাছে ‘কনফারমেশন’ পাঠাবে। এর ভিত্তিতে রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংক বরাবর প্রণোদনার টাকা ছাড় করবে। এই নির্দেশনা ২০১৯ সালের ১ জুলাই থেকেই কার্যকর ধরা হবে। গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এসংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

জানা যায়, রেমিট্যান্সে প্রণোদনা ঘোষণার পর থেকে এত দিন রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক রেমিটারের কাগজপত্র যাচাই করত। রেমিটার যার নামে রেমিট্যান্স পাঠাতেন, তিনি প্রথমে রেমিটারের কাগজপত্র রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংকে জমা দিতেন। রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংক ওই কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করার জন্য রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংকে পাঠাত। আহরণকারী ব্যাংক সেগুলো পরীক্ষা করে প্রদানকারী ব্যাংকে কনফারমেশন দেওয়ার পর প্রণোদনার টাকা পেতেন সুবিধাভোগীরা। এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে অনেক সময় লেগে যেত। সেই সময় কমিয়ে আনা এবং রেমিট্যান্সের প্রণোদনার টাকা যাতে দ্রুততর সময়ে সুবিধাভোগীরা পান, তা নিশ্চিত করতে নতুন এই নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৈধ উপায়ে রেমিট্যান্স প্রেরণের বিপরীতে প্রণোদনা প্রদানের নীতিমালা অনুযায়ী, পাঁচ হাজার ডলার বা পাঁচ লাখ টাকার বেশি রেমিট্যান্সের ক্ষেত্রে ২ শতাংশ প্রণোদনা সহায়তা দেওয়ার ক্ষেত্রে রেমিটারের কাগজপত্রাদি বিদেশের এক্সচেঞ্জ হাউস থেকে পাঠানোর বাধ্যবাধকতা রয়েছে। নির্দেশনায় সেই যাচাই পদ্ধতি সহজ করে বলা হয়েছে, ২ শতাংশ প্রণোদনা সহায়তা গ্রহণের জন্য প্রাপক তাঁর ব্যাংক (প্রদানকারী ব্যাংক) শাখায় রেমিটারের কাগজপত্র জমা দেবেন। রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংক রেমিটারের কাগজপত্র নিজ দায়িত্বে যাচাই করে দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রণোদনা সহায়তা ছাড়করণের জন্য রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংকের কাছে কনফারমেশন পাঠাবে। ওই কনফারমেশনের ভিত্তিতে রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক রেমিট্যান্স প্রদানকারী ব্যাংক বরাবর প্রণোদনা সহায়তা ছাড় করবে। তবে রেমিট্যান্স আহরণকারী এবং প্রদানকারী ব্যাংক একই হলে রেমিট্যান্সের প্রাপক হতে রেমিটারের কাগজপত্র সংগ্রহ এবং ওই কাগজপত্র যাচাই রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক নিজেই সম্পাদন করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here