যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠান মডার্নার তৈরি করা করোনাভাইরাসের টিকা পরীক্ষায় শতকরা প্রায় ৯৫ ভাগ কার্যকর

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠান মডার্নার তৈরি করা করোনাভাইরাসের টিকা পরীক্ষায় শতকরা প্রায় ৯৫ ভাগ কার্যকর দেখা গেছে। ফাইজার ও অক্সফোর্ডের আবিষ্কার করা টিকার প্রায় একই রকম ফল প্রকাশ হয়েছে এরই মধ্যে। এর পর এমন ঘোষণা দিয়েছে মডার্না। এ দু’টি প্রতিষ্ঠানই উচ্চমাত্রায় উদ্ভাবনী ও পরীক্ষামূলক পদক্ষেপ ব্যবহার করেছে। মডার্না তাদের সফলতার দিনটিকে একটি ‘মহান দিবস’ বা গ্রেট ডে হিসেবে অভিহিত করেছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এই টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেয়ার পরিকল্পনা করছে তারা। তবে এখনো গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্ন রয়েছে। ফলে এখন পর্যন্ত যেসব ডাটা প্রকাশিত হয়েছে তাকে প্রাথমিক তথ্য বলা হয়েছে।

এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।
মডার্না বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রে তাদের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ৩০ হাজার মানুষ। তার অর্ধেককে চার সপ্তাহের ব্যবধানে দেয়া হয়েছে দ্বিতীয় ডোজ। বাকিদের দেয়া হয়েছে ডামি ইনজেকশন। এরপর কোম্পানি বলছে, এই টিকা ৯৪.৫ ভাগ সুরক্ষা দেয়। মডার্নার প্রধান মেডিকেল কর্মকর্তা তাল জাকস বলেছেন, এই টিকার সার্বিক কার্যকারিতা বিস্ময়কর। এটা একটা মহান দিবস। কোম্পানির প্রেসিডেন্ট ড. স্টিফেন হগ বলেছেন, আমি এতোটা প্রত্যাশা করিনি। আমাদের কেউ এই টিকা শতকরা ৯৪ ভাগ কার্যকর হবে বলে আশা করবে এমনটা আমরা ভাবিনি। ফলে যে ফল এসেছে তা এক বিস্ময়কর বাস্তবতা।
এই টিকা কবে পাওয়া যাবে সেটা নির্ভর করে আপনি বিশ্বের কোথায় আছেন এবং আপনার বয়স কতো তার ওপর। মডার্না বলেছে, আগামী কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের নিয়মনীতির প্রয়োগ করবে তারা। তারা যুক্তরাষ্ট্রে ২ কোটি ডোজ সরবরাহ দেয়ার প্রত্যাশা করছে। আগামী বছর তারা সারাবিশ্বে ১০০ কোটি ডোজ সরবরাহ দেয়ার আশা করছে। অন্য দেশগুলোতে এই টিকার অনুমোদন চাওয়ার পরিকল্পনা করছে মডার্না। এরই মধ্যে মডার্নার সঙ্গে যোগাযোগ করছে বৃটিশ সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here