মুদ্রানীতি ঘোষণা করতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী এক বছরের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণা করতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায় চলতি মাসে শেষ সপ্তাহ বা আগামী সপ্তাহেই মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা জানান, যেকোনো মূল্যে ঈদের আগেই মুদ্রানীতি ঘোষণাা হবে। তবে জনসমাগম এড়তে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঘোষণা হতে পারে এবারের মুদ্রানীতি।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, করোনার প্রাদুর্ভাবে ব্যাংকের কার্যক্রমও কমে গেছে। দীর্ঘ চার মাস যাবৎ শুধু কিছু লেনদেনের মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে বেশির ভাগ ব্যাংক। এ কারণে বেসরকারি খাতের বিনিয়োগ প্রবাহ নিয়ে জুন মাসের হিসাব চূড়ান্ত হয়নি। চলতি অর্থবছরের ১১ মাসে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ হয়েছে ৭ দশমিক ৮৫ শতাংশ। যেখানে মুদ্রানীতিতে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ। উল্টো বেড়েছে সরকারের ঋণ।

মুদ্রানীতিতে সরকারের ঋণ প্রবাহের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২৪ দশমিক ৩৮ শতাংশ। ১১ মাসে সরকারের ঋণপ্রবাহ লক্ষ্যমাত্রা থেকে প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে হয়েছে ৪৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ। অভ্যন্তরীণ ঋণ প্রবাহের লক্ষ্যমাত্রাও অর্জন হয়নি বিদায়ী মুদ্রানীতিতে। অভ্যন্তরীণ ঋণপ্রবাহ ১৫ দশমিক ৯ শতাংশের বিপরীতে ১১ মাসে অর্জিত হয়েছে ১১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। বিশ্লেষকদের মতে অভ্যন্তরীণ চাহিদা সৃষ্টি করাই এখন রড় চ্যালেঞ্জ।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে নানাভাবে ছাড় দেয়া হলেও ব্যাংকে প্রকৃত বিনিয়োগকারীরা আসছেন না। আর বিনিয়োগকারীরা না এলে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়বে না। এরপরেও মুদ্রানীতিতে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়ানোর সব দরজা খোলা রাখার নীতিতে একমত হয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতিনির্ধারকরা।

দীর্ঘ প্রায় চার মাস ব্যবসাবাণিজ্য বন্ধ। আমদানি কমে গেছে, সেই সাথে কমেছে রফতানি আয়ও। উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগমুখী করতে কম সুদে ঋণ দেয়ার প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। এ প্যাকেজ বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রচলিত নীতিমালা শিথিল করেছে। কিন্তু বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়ছে না। বরং দিন দিন তা তলানিতে নেমে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগমুখী করে অভ্যন্তরীণ চাহিদা সৃষ্টিই এখন বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দিয়েছে। এই অবস্থাই সম্প্রসারণশীল মুদ্রানীতি ঘোষণার পরামর্শ অর্থনীতিবিদদের।

সূত্র : শেয়ারবাজারনিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here