মার্সেলের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী পণ্য বাজারে

এবছর ৫০ মডেলের ফ্রিজ নিয়ে এসেছে মার্সেল। সেইসঙ্গে বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে মার্সেল বাজারে এনেছে উচ্চমানের এলইডি ও স্মার্ট টিভি। গত কয়েক বছর ধরেই পণ্য বিক্রিতে গড়ে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে চলেছে মার্সেল। চলতি বছর প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩০ শতাংশ।

এ লক্ষ্যে নতুন নতুন সেলস ও সার্ভিস পয়েন্ট চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। গ্রাহকরা যাতে ঘরে বসেই সেবা পেতে পারেন সেজন্য বিক্রয়োত্তর সেবায় চালু হয়েছে অন-লাইন কার্যক্রম।

গাজীপুরের চন্দ্রায় মার্সেলের নিজস্ব কারখানায় বিশ্বের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও মেশিনারিজের সমন্বয়ে উৎপাদন করা হচ্ছে ফ্রিজ, এলইডি টিভি, এয়ার কন্ডিশনারসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সেস। দক্ষ প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে গড়ে উঠা গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগ পণ্য সম্ভারে যুক্ত করছে নিত্য নতুন প্রযুক্তি পণ্য।

এবছর স্থানীয় বাজারে মার্সেলের রয়েছে অর্ধশতাধিক চোখ ধাঁধানো মডেলের ফ্রস্ট, নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর ও ফ্রিজার। যুক্ত হয়েছে সাধারন ফ্রিজের চেয়ে ৫০ শতাংশের বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর।

দেশের টেলিভিশন বাজারে মার্সেলের রয়েছে ১৯, ২০, ২৪, ২৮, ৩২, ৩৯, ৪০, ৪৩, ৪৯ ও ৫৫ ইঞ্চির এলইডি টেলিভিশন। এর মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক ফিচার সমৃদ্ধ ৩২ ইঞ্চির স্মার্ট টিভি। স্থানীয় বাজারে অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় সাশ্রয়ী দাম ও উচ্চ গুণগতমানের হওয়ায় মার্সেল ব্র্যান্ডের টেলিভিশন অতি দ্রুত গ্রাহক পছন্দের শীর্ষে উঠে আসছে।

এ বছর স্থানীয় এয়ার-কন্ডিশনারেরর বাজারেও নতুন প্রযুক্তি ও মডেলের এসি নিয়ে এসেছে মার্সেল। গোল্ডেন কালার ফিন ও ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির পর এবছর মার্সেল এসিতে সংযোজন করা হয়েছে আয়নাইজার প্রযুক্তি। এটি রুমের বাতাসকে ধূলা-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত করে ঠান্ডা বাতাস প্রবাহিত করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here