মার্জিন রুলস কার্যকর স্থগিতাদেশের মেয়াদ বৃদ্ধি

স্টাফ রিপোর্টার: মেয়াদ বাড়লো মার্জিন রুলস ১৯৯৯ এর রুল ৩(৫) এর কার্যকারিতার স্থগিতাদেশের। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ব্রোকারস অ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) আবেদনের পেক্ষিতে এই মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিএসইসির ৬৭০তম কমিশন সভায় সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, মার্জিন রুলসের কার্যকারিতা মেয়াদ বাড়ানোর ফলে আগামী ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ সাল পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। ফলে বিনিয়োগকারীদের মার্জিন ঋণ পরিশোধে চাপে পড়তে হবেনা।

মার্জিন রুলস, ১৯৯৯ এর রুল ৩ (৫) ধারায় বলা হয়েছে, যখনই ইক্যুইটি ক্লায়েন্টের মার্জিন অ্যাকাউন্টের ডেবিট ব্যালেন্স ১৫০ শতাংশের নিচে নেমে আসবে তখন হাউজগুলো ঋণ সমন্বয়ের জন্য ক্লায়েন্টকে অবহিত করবে যাতে কোনোভাবেই ইক্যুইটি মার্জিন ঋণের ১৫০ শতাংশের কম না হয়। গ্রাহক প্রতি এ সংক্রান্ত চিঠির ৩ দিনের মধ্যে নগদ অর্থ কিংবা মার্জিনেবল সিকিউরিটিজ দিয়ে অতিরিক্ত ঋণ সমন্বয় করবে হাউজগুলো। যে পর্যন্ত ইক্যুইটি সন্তোষজনক অবস্থায় না আসে সে পর্যন্ত গ্রাহকের লেনদেন বন্ধ থাকবে। ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সিকিউরিটিজ হাউজের বেঁধে দেয়া সময়ে বিনিয়োগকারীরা ঋণ পরিশোধ বা সমন্বয়ে ব্যর্থ  হলে তাদের পোর্টফলিওতে থাকা শেয়ার বিক্রি করে (ফোর্সসেল) তাদের পাওনা আদায় করতে পারবে। বাজার মন্দার কারণে এই রুলসটি একাধিকবার স্থগিত করে দেয় কমিশন। যার মেয়াদ পুনরায় বাড়ানো হলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here