ব্যাংক সংস্কারে কমিটি গঠন পিছিয়ে গেছে

আদালতের নির্দেশনা মেনে ব্যাংক খাতে ঋণ অনুমোদন, বিতরণ ও আদায়ের দুর্বলতা খুঁজতে ৯ সদস্যের কমিটি গঠনের উদ্যোগ পিছিয়ে গেছে। প্রস্তাবিত এই কমিটির প্রধানসহ সবকিছুই চূড়ান্ত করেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কিন্তু এ নিয়ে উচ্চ আদালতে আপিল হওয়ায় এখনই কমিটি গঠনে সম্মত হয়নি বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ। গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় কমিটি গঠন না করার সিদ্ধান্ত হয়।

জানা গেছে, সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকগুলোর অর্থ আত্মসাৎ, ঋণ অনুমোদনে অনিয়ম, ঋণের সুদ মওকুফ–সংক্রান্ত বিষয় তদন্ত এবং তা বন্ধে সুপারিশ প্রণয়নে একটি কমিশন গঠনের নির্দেশনা চেয়ে করা এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত কমিটি গঠনের নির্দেশনাটি দিয়েছিলেন। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ (এইচআরপিবি) ব্যাংক খাতের অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হাইকোর্টে এই রিট করে। সংগঠনটি তখন ব্যাংক খাতের ২০ বছরের বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি ও অর্থ পাচারের তথ্য তুলে ধরে।

আদালতের আদেশে বলা হয়, সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে বাংলাদেশ ব্যাংক একটি ৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করবে। সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকের ঋণ অনুমোদন, বিতরণ ও আদায় পদ্ধতির দুর্বলতা খুঁজতে এই কমিটিতে দক্ষ ব্যাংকাররা থাকবেন। সাবেক ব্যাংকার এবং প্রথিতযশা অর্থনীতিবিদদেরও কমিটিতে যুক্ত করতে পারে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই কমিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য নিয়োগের প্রক্রিয়া, সেবার মান ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে জবাবদিহি খতিয়ে দেখবে। পাশাপাশি ব্যাংকিংয়ের ব্যবস্থাপনা, ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা ও অভ্যন্তরীণ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মতামত ও পরামর্শ দেবে। কমিটির সুপারিশ অনুসরণ করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

উচ্চ আদালতের নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে একজন সাবেক ডেপুটি গভর্নরকে প্রধান করে সংস্কার কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই কমিটিতে বর্তমান ও সাবেক কয়েকজন ব্যাংকারকে রাখার জন্য চিঠি দেওয়া হয়। তবে গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে আলোচনার পর কমিটি গঠনের বিষয়টি আপাতত স্থগিত করা হয়। পর্ষদের অনেক সদস্য এখনই কমিটি গঠনের পক্ষেও না।
এইচআরপিবি কমিশন গঠন চেয়েছিল। কিন্তু আদালত দেন কমিটি গঠনের নির্দেশনা। এ জন্য সংগঠনটি আবার উচ্চ আদালতে আপিল করেছে।

রিটকারী সংগঠন এইচআরপিবির আইনজীবী মনজিল মোরসেদ আদালত বলেছিলেন, কমিশন গঠনের এখতিয়ার আদালতের নেই। আমরা এ নিয়ে আপিল করেছি। এর আগে আদালত কমিশন গঠন করেছেন, এর সুযোগ আছে। আদালত কমিটি গঠনের যে নির্দেশনা দিয়েছেন, এ নিয়ে আমরা কোনো আপত্তি করিনি।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম এ প্রসঙ্গে প্রথম আলোকে বলেন, আদালতের নির্দেশনা মেনে ব্যাংক সংস্কার কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। তবে এ নিয়ে একটি আপিল হওয়ায় এখনই কমিটি গঠন হচ্ছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here