বিশ্ববাজারে আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে রুপার দর

২০১৩ সালের পর সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছে গেছে রুপার দর। পুঁজিবাজারের খুচরা লেনদেনকারীরা গেমস্টপ- এর শেয়ারের অস্থায়ী বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে সফল অবস্থান নেওয়ার পর; রুপার বাজারকে পরবর্তী লক্ষ্যে পরিণত করলে দরের এই রেকর্ড উত্থান দেখা দেয়।

আজ সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) কার্যদিবসের শুরুর দিকের লেনদেনে লন্ডন বাজারে প্রতি আউন্স রুপার দর আউন্সপ্রতি ৩০ মার্কিন ডলার বাড়ে। দর বৃদ্ধির হার ছিল ১১ শতাংশ।

তার আগে গত সপ্তাহে মূল্যবান ধাতুটির দর ৬ শতাংশ বাড়ে। ফলে এটি উত্তোলনকারী খনি কোম্পানিগুলোর বাজার মুল্যায়নে চাঙ্গাভাব বিরাজ করে।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় রুপার ভিত্তিতে লেনদেনকারী তহবিল- আইশেয়ারস সিলভার ট্রাস্ট গেল শুক্রবারে ১০০ কোটি ডলারের বিনিয়োগ পায়। তহবিলটির স্পন্সর সংস্থা- ব্ল্যাকরক সূত্র এ তথ্য জানায়।

ইতোপূর্বে, সামাজিক মাধ্যম রেডিট- এর ‘ওয়ালস্ট্রিটবেটস’ পেজে এক ব্যবহারকারী সাধারণ মানুষের প্রতি ধাতু বাজারে বিনিয়োগ করে বৃহৎ ব্যাংকগুলোর নিয়ন্ত্রণ হ্রাসের আহ্বান জানান। তার পরই বিনিয়োগের নতুন গতি লক্ষ্য করা যায়।

“নেহাত নির্বুদ্ধিতা আর অর্থনৈতিক নৈরাজ্য ছাড়া এটি অন্যকিছুই নয়; কিন্তু সমস্যা হলো, এর মাধ্যমে অনেক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে,” মন্তব্য করেন মূল্যবান ধাতুর পেশাদার লেনদেনকারী নরম্যান রস।

গেল সপ্তাহে দ্য হ্যাপি হাওয়াইয়ান’ নামের ওই ব্যবহারকারী লেখেন, লেনদেনের ভিত্তিতে পরিচালিত তহবিল- ইটিএফ- এ বিনিয়োগ করলে “রুপার বাস্তবিক সরবরাহ” তহবিলগুলোয় জোর করেই নিশ্চিত করা যাবে। ফলে বাজারে দেখা দেবে “সাময়িক চাপ” যেকারণে রুপোর দর বাড়তে বাধ্য হবে।

ফোরাম পেজে ওই ব্যবহারকারী আরও লেখেন, এমন পরিবর্তন করা গেলে তা হবে অবিশ্বাস্য। এরফলে ধাতুর বৈশ্বিক বাজারে বিনিয়োগকারী বড় ব্যাংকগুলোকে ‘চরম মূল্য’ দিতে হবে, কারণ তারা রুপার দরপতনের পক্ষে বাজি ধরেছে।

এই আহব্বানে গেমস্টপে বিনিয়োগকারী নব্য পুঁজি লগ্নীকারীর দল বিপুল সাড়া দেয়। গত সপ্তাহে তাদের শেয়ার কেনার হিড়িকেই লোকসানের মুখ দেখে মেলভিন ক্যাপিটাল সহ বেশ কয়েকটি হেজফান্ড। তারা গেমস্টপের শেয়ার বিক্রির উদ্যোগ নিয়েও কোম্পানিটির দর কমাতে ব্যর্থ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here