প্রিমিয়ার সিমেন্টকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ‘কঠোর বিধিনিষেধে’র মধ্যে কারখানা খোলা রাখায় এবং শ্রমিকদের কাজে আসতে বাধ্য করায় প্রিমিয়ার সিমেন্ট মিলস লিমিটেডকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই ঘটনায় কোম্পানিটির ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) নজরুল ইসলামকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আদালত মুন্সীগঞ্জে অবস্থিত প্রিমিয়ার সিমেন্টের কারখানাটি সিলগালা করে দিয়েছেন। আগামী ১৩ দিন অর্থাৎ ৫ আগস্ট পর্যন্ত কারখানা সিলগালা থাকবে।

শুক্রবার, ২৩ জুলাই সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হামিদুর রহমান এ জরিমানা ও কারাদণ্ড দেন।

জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) শিলু রায় গণমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, কোম্পানিটি জরিমানা পরিশোধ না করলে উক্ত কর্মকর্তাকে আরও একমাস কারাভোগ করতে হবে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় মুন্সীগঞ্জ শহরের পশ্চিম মুক্তারপুরে অবস্থিত প্রিমিয়ার সিমেন্টের কারখানায় কর্মরত এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। ওই শ্রমিকের নাম মো. শাহাবুল (৩৮)। তিনি গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম শিবরামপুরের মৃত শামসুদ্দিনের ছেলে। কারখানায় কর্মরত অবস্থায় ক্লিংকার টানার ফিতায় পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

লকডাউনে কারখানা খোলা রাখায় বিকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান চালায়।

তবে শুক্রবার মুন্সীগঞ্জে প্রিমিয়ার সিমেন্টের পাশাপাশি আরও কয়েকটি সিমেন্ট কারখানা খোলা ছিল বলে জানা গেছে। তবে প্রিমিয়ার সিমেন্টকে জরিমানা করার পর বাকী কারখানাগুলো নিজেরাই বন্ধ করে দেয় বলে সূত্র জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here