পপির সম্পর্কে নতুন তথ্য দিলেন পরিবার

‘মা হয়েছেন চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভিন পপি। গেলো বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানীর একটি হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। ডাক্তারের দেওয়া নির্ধারিত তারিখ ছিল আগামী ৫ নভেম্বর। তবে নির্ধারিত তারিখের আগেই সিজারের মাধ্যমে পৃথিবীতে এসেছে নতুন অতিথি। বর্তমানে মা-ছেলে দুজনই সুস্থ আছেন।’ গত শনিবার (৩০ অক্টোবর) হঠাৎ মিডিয়া পাড়ার এমন গুঞ্জন উঠলে এ ব্যাপারে জানতে পপির মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তার ব্যবহৃত নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এই গুঞ্জন পৌছে যায় পপির পরিবারের কাছে। যেহেতু পপির সঙ্গে যোগাযোগ করা উপায় নেই, তাই গণমাধ্যম থেকে যোগাযোগ করা হয় পপির বাবার সঙ্গে। চিত্রনায়িকা পপির বাবা ব্যাপারটি আরও জটিল করে তোলেন।এসব ঘটনার মধ্যেই পপির বাবা আবুল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘পরিবার নিয়ে আমি অনেক দিন ধরেই খুলনায় আছি। শুনেছি পপি সন্তানসম্ভাবনা। এসব নিয়ে নানা জনের নানা প্রশ্নের উত্তর দিতে হচ্ছে। বাবা হিসেবে বেশ দুশ্চিন্তায় আছি। আমি বা আমার পরিবারের কেউই এ বিষয়ে কিছু জানি না। এমনকি পপির সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হচ্ছি। এখন মেয়ে যদি বাবার ফোন না ধরে, তাহলে এই দুঃখ কাকে জানাব! আমরাও অপেক্ষায় আছি ওর খবর পাওয়ার।’

অন্যদিকে, বিয়ের পর পপি কোথায় বসবাস করছেন, এ নিয়ে দুটি গুঞ্জন রয়েছে। কারো ধারণা, গাজীপুরের এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করে সেখানেই স্থায়ী হয়েছেন তিনি। আবার আরেকটি সূত্রে জানা যায়, তিনি বসবাস করেন ঢাকার একটি ডিপ্লোমেটিক এলাকায়।

এদিকে গত আগস্ট মাসে গণমাধ্যমের কাছে পপির মায়ের একটি ভিডিও বার্তা আসে। সেখানে তিনি দাবি করেন, পপি তার খোঁজ নেন না। এমনকি তারা একে-অপরের ঠিকানা পর্যন্ত জানেন না।উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কুলি’ সিনেমার মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন পপি। প্রথম সিনেমাতেই বাজিমাৎ। এরপর অসংখ্য দর্শকপ্রিয় ও সফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন এ নায়িকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here