নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম যেন অস্বাভাবিকভাবে না বাড়ে : এফবিসিসিআই

স্টাফ রিপোর্টার : নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর বছরব্যাপী চাহিদা ও এর যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণের জন্য ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠকে বসেছে।

সংগঠনটি জানিয়েছে, ভোক্তারা যেন ন্যায্যমূল্যে পণ্য পায় সেই অধিকার নিশ্চিত করাই তাদের লক্ষ্য। তবে ব্যবসায়ীরাও যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে দিকেও তাদের লক্ষ্য থাকবে।

রবিবার, ২৪ নভেম্বর দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলে এফবিসিসিআইয়ের ভবনে ‘নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর বছরব্যাপী চাহিদা, উৎপাদান, আমদানি, মজুদব্যবস্থা, সরবরাহ ব্যবস্থাপনা ও যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা’ শীর্ষক রাউন্ড টেবিল বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে সূচনা বক্তব্য দেন এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, ‘এখান উত্তরবঙ্গ থেকে চালকল মালিকরাও এসেছেন, যারা পণ্য প্রসেসিংয়ের সঙ্গে জড়িত আছেন তারাও এসেছেন। আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যগুলো যেন অস্বাভাবিকভাবে দাম না বাড়ে। ভোক্তারা যেন ন্যায্যমূল্য পায়, একই সঙ্গে ব্যবসায়ীরা যারা এর সঙ্গে জড়িত, যারা বিনিয়োগকারী তাদের হেলদি একটা লাভও হয়।’

সংগঠনটির সভাপতি বলেন, ‘আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সারা বছরের ভ্যালু চেইঞ্জ ম্যানেজমেন্ট কেমন হবে, কোন পণ্য কতটুকু উৎপাদন হয়, আমদানি ও রপ্তানি কতটুকু হয়, প্রসেসিংয়ের সঙ্গে যারা জড়িত, ইন্টার মিনিস্ট্রি ও ইন্টার ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের সমন্বয়ে একটা সুনির্দিষ্ট ভ্যালু চেইঞ্জ ম্যানেজমেন্টে যেতে পারি কি না সে ব্যাপারে আলোচনা হবে।’

বৈঠকে বিভিন্ন সেক্টরের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা রয়েছেন। বৈঠকে চাল, ডাল, গম, ভ্যেজ্য তেল, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, হলুদ, মরিচ, গরম মসলা, চিনি, লবণ, মাছ, মাংস ও পোল্ট্রিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর বাংলাদেশে পণ্যের উৎপাদন, আমদানি, মজুদব্যবস্থা, সরবরাহ ব্যবস্থাপনা ও যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনার নিয়ে আলোচনা চলছে।

বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোশাররফ  হোসেন ভূঁইয়া এবং কৃষি ও শিল্প মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব, এফবিসিসিআইর সিনিয়র সহসভাপতি মুনতাকিম আশরাফ, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, টিসিবি, ট্যারিফ কমিশন, প্রতিযোগিতা কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিনিধিরা অংশ নিয়েছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বৈঠক চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here