নানি হয়েও প্রেমে পড়েছেন মেরিল

নেটফ্লিক্সে আজ (শুক্রবার) মুক্তি পাচ্ছে মেরিল স্ট্রিপ অভিনীত ছবি ‘দ্য প্রম’। এই সিনেমায় মেরিলের সহশিল্পী হিসেবে আছেন মার্কিন অভিনেতা, কমেডিয়ান, লেখক ও প্রযোজক কিগ্যান–মাইকেল কে। এই ছবিতে কাজ করতে গিয়েই নাকি ৪৯ বছর বয়সী সহকর্মীর প্রেমে পড়ে গিয়েছেন মেরিল। সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অস্কারজয়ী এই অভিনেত্রী তিনবার বলেছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে, আমি যেন কিগ্যানের প্রেমে পড়ে গিয়েছি। সে এতটাই দুর্দান্ত ব্যক্তিত্ব।’

মেরিলকে বলা হয় এই প্রজন্মের সেরা অভিনেত্রী। বছরের পর বছর অস্কারের মধ্যমণি হয়ে আছেন তিনি। সেরা নারী অভিনয়শিল্পী হিসেবে পুরস্কার দেওয়া হবে, আর মেরিল স্ট্রিপের নাম নেওয়া হবে না, তা হয়নি অনেক দিন। অস্কারে এ পর্যন্ত ২১ বার সেরা নারী অভিনয়শিল্পী হিসেবে মনোনয়ন পেয়ে তিনি গড়েছেন বিশ্ব রেকর্ড। রেকর্ড বইয়ে সোনালি হরফে লেখা আছে ৩৩টি গোল্ডেন গ্লোব মনোনয়নের কথাও। এর ৯টি পুরস্কার তিনি ঘরেও তুলেছেন। ‘দ্য প্রম’ ছবির সহকর্মী কিগ্যানের প্রশংসা করে এই অভিনেত্রী বলেছেন, ‘কিগ্যানের মেধার কোনো সীমা–পরিসীমা নেই। তিনি খুবই মজার একটা মানুষ। মানুষকে হাসাতে জানেন, আবার গানও গান। তাঁর সঙ্গে কাজ করা এক দারুণ ব্যাপার।’ এসব শুনে কিগ্যান তো খুশিতে একসার। তিনি বলেছেন, ‘আমি তো কল্পনাই করতে পারছি না যে মেরিল আমার সম্পর্কে এত চমৎকার সব কথা বলেছেন।’ মজা করে বলেছেন, ‘এত প্রশংসা করার জন্য মেরিলকে আমার কোটি টাকা দেওয়া উচিত। তিনি কিংবদন্তিতুল্য। তাঁর প্রশংসা করা বাহুল্য। বিশ্ব জানে, তিনি কে। তবে আমি বিশ্বাস করি, মেরিলের হৃদয়ে আমার জন্য জায়গা আছে। না হলে তিনি আমাকে নিয়ে এসব বলতে পারতেন না। তিনি যা বলেছেন, তা আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা অর্জন। এর চেয়ে বড় সম্মান আর হয় না।’১৯৭৬ থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত জন ক্যাজালের সঙ্গে সংসার করেছেন মেরিল স্ট্রিপ। ক্যাজালে ফুসফুসের ক্যানসারে মারা যাওয়ার ছয় মাস পর ভাস্কর ডন গ্যামারকে বিয়ে করেন তিনি। ৪২ বছরের সংসারজীবনে চার সন্তানের মা হয়েছেন মেরিল। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে নানিও হয়েছেন তিনি। রায়ান মার্ফি পরিচালিত মিউজিক্যাল কমেডি ‘দ্য প্রম’ সিনেমায় মেরিল ও কিগ্যান ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন নিকোল কিডম্যান, জেমস করডেন, অ্যান্ড্রু র‌্যানেলস প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here