দুই মাসের মার্জিন ঋণের সুদ মওকুফ

স্টাফ রিপোর্টার : কভিড-১৯ মহামারিজনিত কারনে এপ্রিল ও মে মাসের মার্জিন ঋণের সুদ মওকুফ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। যারা ওই ঋণের সঙ্গে জড়িত সবাই সুদ মওকুফের সুবিধা পাবেন। এক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের ন্যায় যে প্রতিষ্ঠান মার্জিণ ঋণ দিয়েছে, সেই প্রতিষ্ঠানও গৃহিত ঋণের জন্য সুদ মওকুফের সুবিধা পাবে।

মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর ফজলে কবির এক বৈঠকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রতিনিধি দলকে এ তথ্য জানান।

বৈঠকে অংশ নেওয়া ডিএসইর পরিচালক শাকিল রিজভী একটি অনলাইন নিউজপোর্টালকে বলেন, আমরা ৬ মাসের জন্য মার্জিণ ঋণের সুদ মওকুফ দাবি করেছিলাম। এর আলোকে গভর্ণর জানিয়েছেন ইতিমধ্যে এপ্রিল ও মে মাসের মার্জিণ ঋণের সুদ মওকুফ করা হয়েছে। এই সুবিধা সকল মার্জিণ ঋণ গ্রহিতা পাবে। এছাড়া মার্জিণ দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো গৃহিত ঋণের জন্য ২ মাসের সুদ মওকুফের সুবিধা পাবে।অর্থাৎ মার্জিণ দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহকের ২ মাসের সুদ মওকুফ করে তথ্য সরবরাহ করলে সরকার ওই পরিমান অর্থ প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিশোধ করবে।

তিনি আরও বলেন, ট্রেজারি বন্ডের লেনদেন চালু করা নিয়ে আজকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে আয়োজিত বৈঠকে আলোচনা করা হয়েছে। এছাড়া করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কাটিয়ে উঠতে এক বছরের জন্য সহজ শর্তে ঋণ দাবি করেছি। যা বাংলাদেশ ব্যাংকের হাতে নেই বলে গভর্ণর জানিয়েছেন। এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করতে হবে।

ডিএসইর প্রতিনিধি দলে অংশ নেন চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান, পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান, সালমা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী সানাউল হক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here