ডিএসইতে ডিজিটাল সাবমিশন অ্যান্ড ডেসিমিনেশন প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধন

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড (ডিএসই) ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ দর্শনের সাথে সঙ্গতি রেখে তালিকাভুক্ত কোম্পানীসমূহের সিকিউরিটিজ আইনের বিভিন্ন কমপ্লায়েন্সের স্বচ্ছতা ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য সমন্বিত অনলাইন ডেটা সংগ্রহ, যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত জমা, মূল্যসংবেদনশীল তথ্য, আর্থিক হিসাব সরাসরি প্রদানের জন্য একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম তৈরী করেছে। এই ধরনের একটি প্ল্যাটফর্ম দেশের প্রযুক্তি নির্ভর পুঁজিবাজারের জন্য একটি বড় পদক্ষেপ। ইনফরমেশন অনলাইন সাবমিশনের মাধ্যমে দেশের পুঁজিবাজারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে। সফটওয়্যারটি ডিএসই’র লিস্টিং অ্যাফেয়ার্স মার্কেট অপারেশন ও আইটি টিমের সমন্তি উদ্যোগ যৌথভাবে তৈরী করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই প্রধান অতিথি হিসেবে ডিজিটাল সাবমিশন অ্যান্ড ডেসিমিশন প্ল্যাটফর্মটি উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ।

উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, এই সফটওয়্যারটি প্রযুক্তি নির্ভর পুঁজিবাজার বিনিমার্ণের জন্য একটি বড় অর্জন। সফটওয়্যার শুধু তৈরি করলেই হবে না এর ধারাবাহিক উন্নয়ন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সফটওয়্যারটি সঠিকভাবে মেইনটেনেন্স করতে হবে। একই সাথে এর ব্যবহারকারীদের যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রশিক্ষিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি বড় বড় কোম্পানিগুলো বিভিন্ন ধরনের কম্প্লায়েন্সের জন্য তালিকাভুক্ত হতে আগ্রহী হয় না। এ সফটওয়্যারের ফলে কমপ্লায়েন্স পালন সহজ হবে। ফলে বড় বড় কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে উদ্বুদ্ধ হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য প্রদান করেন ডিএসই’র চেয়ারম্যান মো: ইউনুসুর রহমান। তিনি বলেন, একটি দেশের উন্নয়নের জন্য ডিজিটালাইজেশন দর্শন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিগত ৩৫ বৎসর যাবৎ আমাদের দেশের তেমন কোন ভিশন-মিশন ছিল না। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে ভিশন ২০২৪, ২০৩০ ও ২০৪১ ডেল্টা প্লান করে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কিছু সহকর্মী বিগত এক বৎসরের বেশি সময় ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চমৎকার এই সময়োপযোগী সফটওয়্যার তৈরি করেছে। এই সফটওয়্যারটিকে আগামীতে আরও উন্নত এবং ব্যবহার বান্ধব করতে হবে। আর এজন্য আমাদের প্রতিনিয়ত কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ডিএসই’র প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা মো: জিয়াউল করিম। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য প্রদান করেন ডিএসই’র প্রধান রেগুরেটরি কর্মকর্তা (চলতি দায়িত্ব) মো: আব্দুল লতিফ। ডিএসই’র সিনিয়র ম্যানেজার (লিস্টিং অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্ট) মো: রবিউল ইসলাম সফটওয়্যারটির ব্যবহার সম্পর্কে এবং ডিএসই’র সিনিয়র এক্সিকিউটিভ (আইসিটি ডিভিশন) নাজমুস সাকিব সফটওয়্যারটির টেকনিক্যাল ফ্রেমওয়ার্ক সম্পর্কে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে ধারণা প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য প্রদান করেন ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ইনচার্জ) আবদুল মতিন পাটওয়ারী, এফসিএমএ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ডিএসই’র উপমহাব্যবস্থাপক (মার্কেট অপারেশন) সাইদ মোহাম্মদ জুবায়ের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here