জায়গা মতো ভালো খেলব : ইমরুল কায়েস

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একসময়ের তামিম ইকবালের নিয়মিত ওপেনিং পার্টনার ইমরুল কায়েসকে এখন জাতীয় দলে সুযোগ পেতে লড়াই করতে হয়। অনেকদিন ধরেই নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন ইমরুল। চলতি বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্রথম পর্বের পুরোটাই তার জ্বলে ওঠার আশায় কেটে গেছে। বেশ কয়েকবার বড় ইনিংসের ইঙ্গিত দিয়েও থেমে গেছেন। তবে তার দল জেমকন খুলনা উঠেছে প্লে অফে। এই পর্বে ভালো কিছু করার আশা করছেন ইমরুল।

টুর্নামেন্টের প্রথম দুই ম্যাচে ‘ডাক’ মারা ইমরুল পরের একটি ম্যাচেও ৪০ ছুঁতে পারেননি। এরপর পারিবারিক কারণে তাকে জৈব-সুরক্ষা বলয় ছেড়ে বেরিয়ে যেতে হয়। কয়েকটি ম্যাচ মিস করে ফেরার পর আইসোলেশনে থেকে কোভিড পরীক্ষা করিয়ে আবার দলে যোগ দেন। নিজের পারফর্মেন্স নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার  যে প্রত্যাশা  ছিল, ওইভাবে করতে পারিনি। তবে ঠিক আছে, একটা খেলোয়াড় সব সময় সব টুর্নামেন্টে ভালো খেলে না। এখনও সুযোগ আছে, অন্তত আরও দুটি ম্যাচ আছে। চেষ্টা করব জায়গা মতো ভালো খেলার। যখন সুযোগ হবে, ওই সময়ে ওইভাবে চেষ্টা করব পারফরম্যান্স করার।’

প্লে অফে ইমরুলদের প্রতিপক্ষ শীর্ষ দল গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। যে দলে তরুণ তারকাদের সমাবেশ। অন্যদিকে অভিজ্ঞ সব সুপারস্টারে ভরপুর খুলনার পারফর্মেন্স মোটেও প্রশংসনীয় নয়। ইমরুল বলেন, ‘প্রথম থেকেই টপ অর্ডারে আমরা ওইভাবে কেউ ক্লিক করতে পারিনি। এই জায়গাতে উন্নতির দরকার। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি, প্রত্যেক ম্যাচেই কিভাবে কী করলে ভালো হয়। আমার মনে হয়, পরবর্তী ম্যাচ থেকে এটা কাটিয়ে উঠব। প্রত্যাশা প্রথম থেকেই আছে যে আমরা ফাইনাল খেলব। চ্যাম্পিয়নশিপের সবারই ইচ্ছা আছে।’

শিরোপার স্বপ্ন পূরণ করার পথে ইমরুল ভরসা রাখছেন দলের তারকাদের ওপর, ‘টি-টোয়েন্টিতে একটা ম্যাচে ভালো খেললে যেকোনো সময় অনেক কিছু পরিবর্তন হয়ে যায়। বড় খেলোয়াড়রা সেমি-ফাইনাল বা বড় ম্যাচে ভালো খেলে। আমাদের দলে যেসব খেলোয়াড় আছে, সাকিব বিশ্বের সব ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটই খেলে। ওর যে অভিজ্ঞতা, এই টুর্নামেন্টে খুব কম খেলোয়াড়েরই আছে। সেদিক থেকে বলব যে অবশ্যই এগিয়ে আছি আমরা। হয়তো পারফরম্যান্সটা সঠিক সময়ে ক্লিক করতে পারছি না। আমি আশাবাদী যে পরবর্তী ম্যাচে এসব কাটিয়ে উঠব।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here