গ্রেপ্তার হয়েছিলেন সাবেক ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার সুরেশ রায়না

ক্রিকেট দুনিয়াকে চমকে দিয়েই হুট করে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন সাবেক ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার সুরেশ রায়না। গতকাল সোমবার গভীর রাতে করোনা বিধি ভাঙার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করে মুম্বাই পুলিশ। পরে জামিনও পেয়ে যান। মঙ্গলবার বিকেলে রায়নার পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, তিনি জানতেন না যে মহারাষ্ট্র সরকার করোনা বিধিতে বদল এনেছে।

ক্রিসমাস এবং নতুন বছর ঘিরে মানুষের লাগামহীন উৎসবের ফলে করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশংকায় ২২ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত করোনা বিধিতে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে মহারাষ্ট্র সরকার। সেই নিয়ম অনুযায়ী রাত ১১টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কারফিউ চলবে। এই সময়ের মধ্যে ক্লাব খুলে রাখা যাবে না। কিন্তু মুম্বাইয়ের ড্রাগন ফ্লাই ক্লাবে গভীর রাতে রায়না, হৃতিক রোশনের সাবেক স্ত্রী সুজান খান এবং গায়ক গুরু রনধাওয়াকে পাওয়া যায়। সেখান থেকে মোট ৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এই ঘটনায় ক্রিকেটাঙ্গনে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। অবশেষে আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে রায়নার ম্যানেজমেন্ট জানিয়েছে, ‘একটি শুটিংয়ের কাজে মুম্বাই গিয়েছিলেন রায়না। বেশ রাত হয়ে যায় শ্যুট শেষ হতে। রায়না এক বন্ধুর সঙ্গে একটি ক্লাবে যান রাতের খাবার খেতে। দিল্লি ফেরার জন্য বিমান ধরার আগে সেখানে গিয়েছিলেন তিনি। কোভিড প্রোটোকল জানা ছিল না তাঁর। সব সময় আইন মেনেই কাজ করেন রায়না। এই ভুল অনিচ্ছাকৃত এবং দুর্ভাগ্যজনক।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here