কোকা-কোলার ‘নিখোঁজ শব্দের খোঁজে

কোকা-কোলা বাংলাদেশ লিমিটেড মাতৃভাষা দিবস এবং ভাষার মাসকে কেন্দ্র করে এ বছর আয়োজন করেছিল ‘নিখোঁজ শব্দের খোঁজে’ ক্যাম্পেইন।

কেউকেটা, সমীচীন, সম্পৃক্ত, বালখিল্য… ধরনের শব্দগুলোর ব্যবহার এখন আর বাংলা ভাষায় দেখা যায় না।

বাংলা ভাষায় পূর্বে ব্যবহৃত শব্দগুলোকে আবারো ফিরিয়ে আনার জন্যেই কোকা-কোলা বাংলাদেশ ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতেই চালু করে ‘নিখোজ শব্দের খোঁজে’ শিরোনামে মাসব্যাপী ভাষা দিবস ক্যাম্পেইন।

গত তিন বছরে কোকা-কোলা ভাষার প্রতি সম্মান দেখিয়ে বাংলাদেশে ভাষার জন্য ‘মাতৃভাষা ছড়িয়ে দাও, ভালবাসায় ভরিয়ে দাও’ ‘সম্পর্ক উদযাপন ক্যাম্পেইন’ এর মতো কর্মসূচি হাতে নিয়েছিল।

‘নিখোজ শব্দের খোঁজে’ ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে কোকা-কোলার পক্ষ থেকে একটি ওয়েবসাইট খোলা হয়। ৩ ফেব্রুয়ারি ওয়েবসাইট চালুর পর ফেব্রুয়ারি মাস জুড়ে লক্ষাধিক মানুষ এটি ভিজিট করেছে।

ফেসবুকে হারিয়ে যাওয়া বাংলা শব্দ নিয়ে ছিল শব্দ শিকার কুইজ এবং অনলাইনে নিখোঁজ বাংলা শব্দ জমা দেওয়ার ব্যবস্থা।

৩৬ হাজার মানুষ কুইজে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ৩৬৬ জন পুরস্কৃত হয়েছেন। বিজয়ীদের বাসায় পৌছে গিয়েছে এক কেস কোকা-কোলা।

ক্যাম্পেইনে ১২ হাজারের বেশি মানুষ শব্দ জমা দিয়ে অবদান সনদ নিয়েছে। তবে অনেক শব্দের পুনরাবৃত্তি হওয়ায় কোকা-কোলার ওয়েবসাইটে ৫,৫০০ শব্দ জমা হিসেবে দেখানো হয়েছে।

ক্যাম্পেইনে মানুষের সাড়া ছিল ব্যাপক। বিশেষ করে তরুণদের কাছে।

ক্যাম্পেইনে সাড়া দিয়ে খ্যাতিমান কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক আনিসুল হকও শব্দ জমা দিয়ে সনদ নিয়েছেন।

শব্দ জমা দিয়ে সনদ নিয়েছেন চলচ্চিত্র পরিচালক অমিতাভ রেজা, সঙ্গীত শিল্পী বাপ্পা মজুমদারসহ অনেক খ্যাতনামা ব্যক্তি।

কোকা-কোলা বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শাদাব খান বলেন, ‘কোকা-কোলা সবসময় স্থানীয় ভাষা এবং সংস্কৃতির আদান প্রদানে বিশ্বাসী এবং উৎসাহ যোগায়।’

তিনি বলেন, ‘মানুষ সব সময়ই স্থানীয় ভাষায় কথা বলতে বা মনের ভাব প্রকাশ করতে ভালবাসে। আর এ কারণেই স্থানীয় ভাষায় জন্য কাজ করতে পেরে কোকা-কোলা আনন্দিত।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here