কক্সবাজার ভ্রমন মাত্র ৩ হাজার টাকায়!

স্টাফ রিপোর্টার: কক্সবাজার নিয়ে ঘুরা ঘুড়ির অনেকেই অনেক পোস্ট করেন। তবে কম খরচে ঘুরে বেড়োনোর জন্য নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করছি। ভরা মৌসুমে মাত্র ৩০০০ টাকায় কক্সবাজার ভ্রমন করে আসছি।

যাতায়াতঃ ঢাকা ট্রেনে করে চট্টগ্রাম আসবেন, ভাড়া শোভন ৩৫০। আপনি চট্টগ্রাম রেলষ্টেশনে এসে এর বাইরে দেখতে পাবেন হানিফ, ইউনিক সার্ভিস এর লোকেরা টেবিল নিয়ে বসে আছ। ভাড়া ২৫০ টাকা। তবে আসার সময়ই আপনাকে বাস করে আসতে হবে। কারন ট্রেন এর টিকেট নাও পেতে পারেন।

থাকাঃ আপনাকে বাস কলাতলি নামিয়ে দিবে। যদি আপনি নিরিবিলি পছন্দ করেন তাহলে কলাতলি থাকবেন। কারন এই দিকে মানুষ কম। আমরা ছিলাম সী গাজীপুর রিসোর্ট। ভাড়া সিঙ্গেল রুম ৪৫০ টাকা। কিন্তু ওখানে আরামে ৩ জন থাকতে পারবেন।

এছাড়া শুগন্ধা বিচের রাস্তার অপর পাশের গলিতে কমের মধ্যে ভাল হোটেল আছে। অবশ্যই আপনি দামাদামি করবেন। ২-৩ হোটেল ঘুরে তারপর ঠিক করবেন কোনটাই উঠবেন। একটা কথা বলি রাখি অনেক ভাল হোটেল আছে কিন্তু আপনি খেয়াল রাখবেন ওইটা সী- বিচ থেকে কত দূর আপনি একটু খুঁজলেই বিচের কাছে কমের মধ্যে হোটেল পাবেন।

খাওয়াঃ আপনি যদি জামাই আদর পেতে চান তাহলে শালিক রেসটুরেন্টে যাবেন। ওদের সার্ভিস দেখে আমি পুরা অবাক, বকসিসের ধার ধারে না ওরা এবং আপনি যদি বেশি টাকার খাবার খান তাহলে ওরা আপনাকে এক্সট্রা আমের ভরতা, মালটা পর্যন্ত ফ্রী খাওয়াবে।

কলাতলিতে বৈশাখী হোটেল সবচেয়ে কম টাকাই খাওয়া যাই। খাবারের মানও ভাল। যদি কাঁকড়া খেতে চান ছোট কাঁকড়া খাবেন ২৫-৩০ টাকা, কারন ওইটার সবকিছু খেতে পারবেন। আর টুকটাক কেনাকাটা আপনি বিচ এর পাশে ছোট দোকান গুলা থেকে কিনবেন, একি জিনিষ দাম কম।

ঘুরাঘুরিঃ কলাতলি মোর থেকেই অটো পাবেন হিমছড়ি যাওয়ার জন্য ভাড়া ২০ টাকা। তবে দম্পতি দেখলে ৩০ টাকা করে রাখতে পারে। হিমছড়িতে আপনি পাহাড় দেখবেন এবং ঝরনা। ঢুকতে ৩০ টাকা। পাহার বেশি বড় না। তাই ভয় পাবার কোন কারন নেই। হিমছড়ি থেকেই ৫০ টাকা দিয়ে আপনি ইনানি বিচ যেতে পারবেন।

ইনানি বিচ হল শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্য, লাফালাফি ভুলেও করতে যাবেন না। পাথর আছে পানির নিচে হাত পা কেটে যেতে পারে। অনেক ফটোগ্রাফার আছে যারা ঠিক মত ছবি তুলতে পারে না সে ক্ষেত্রে আপনি নিজে ওদের কাছ থেকে ক্যামেরা নেয়া ছবি তুলতে পারবেন। পার পিস ৩ টাকা করে। আর একটা বিষয় আপনি বলে নিবেন কয়টা ছবি আপনি তুলবেন। ওরা অনেক চালু ধরা খেয়ে যাবেন ক্লিয়ার না করলে।

এর পর আসি রামু। আপনি যেকোনো যাইগা থেকে রামু লাইন মিনি বাস উঠবেন। ভাড়া ২০ টাকা। রামু বাজারে ওরা আপনাকে নামিয়ে দিবে। সেখান থেকে আপনি হাতের ডান দিকে অটোতে করে ১৫ টাকা দেয়া রামু মন্দির, কানটনমেন্ট ঘুরে দেখতে পারবেন। নির্জন পরিবেশ ভাল লাগবে আপনাদের। রামু এবং হিমছড়ি, ইনানি বিচ একদিনে ঘুরতে পারবেন।

এখন আসি মহেশখালী। আমর মতে সেন্টমারটিন বাদে সবথকে বেস্ট জাইগা হল এটা। অটো তে করে ১০-১৫ টাকা দেয়া ঘাটে যাবেন। মহেশখালী এর যাওয়ের ঘাটের কথা বললেই ওরা আপনাকে নিয়ে যাবে। তারপর ৭৫ টাকা দিয়ে স্পীড বোট করে মহেশখালী যাবেন। যদি টাকা বেশি থাকে তাহলে আপনি স্পীড বোট ভাড়া করতে পারেন। তখন আপনি ওদের বলবেন আদিনাথ জেটি তে যেতে। ওরা আপনাকে একটা বড় ব্রিজ এর কাসে নিয়ে যাবে। অইখান থেকে পাহাড়ে যাওয়া যায়।

আর যদি টাকা না থাকে তাহলে আপনি মহেশখালী ঘাটে নেমে রিক্সা নিয়ে নিবেন অথবা অটো তে করে ডিরেক্ট পাহাড় যাবেন। রিজার্ভ করলে ১০০-১৫০ এর থেকে বেশি না। আর যদি পারেন কোন ছোট বোট করে আসে পাশে ঘুরবেন। আসার টাইম আপনি ট্রলার করে আসবেন সময়ই লাগবে ১ ঘন্টা, ভাড়া ৩০ টাকা। ট্রলারে আসতে বলছি এই জন্য যখন আপনি ট্রলারে ঢেঊ এর বারি খাবেন তখন পাবেন আসল মজা। তবে আসার সময়ই স্পীড বোটে আসবেন, নাহলে ক্লান্ত হয়ে পরবেন।

কক্সবাজার জায়গাটা অনেক প্রোফেসনাল যায়গা, সবাই আপানার কাছ থেকে টাকা বেশি নেয়ার চেষ্টা করবে, আপনি সাহস করে দামাদামি করে, একটু ঘুরে দেখলেই কম দামের মধ্যে সব পাবেন। আর এখন অনেক গরম তাই আপনি সকাল ৭ টার মধ্যে ঘুরতে বের হবেন তাহলে দুপুরের আগে ঘুরা শেষ করতে পারবেন, কষ্ট অনেক কম হবে গরমও লাগবে না তেমন তারপর বিকালের দিকে বের হবেন।

যেকোনো জায়গায় যাওয়ার আগে ভাল করে দামাদামি করে নিবেন আমরা হিমসরি থেকে রিক্সা করে এনানি বিচ গেসিলাম ৫০ টাকা জন প্রতি বলে সেখানে গিয়ে রিক্সাওয়ালা বলে জন প্রতি ১০০ করে। এই রকম কিছু হলে অবশ্যই ভয় পাবেন না সাথে আপনার যে থাকুক না কেন আপনি ভাল করে ভদ্র ভাষায় কথা বলবেন।

তথ্যসুত্র: ট্যুরস কক্সবাজার ডটকম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here