কক্সবাজারে চা চাষের উদ্যোগ

কক্সবাজার জেলায় ক্ষুদ্রায়তন চা চাষ সম্প্রসারণে একটি নতুন প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ চা বোর্ড। বোর্ডের একটি বিশেষজ্ঞ টিম সম্প্রতি জেলার চকরিয়া, রামু এবং সদর উপজেলার চা চাষযোগ্য জমি নির্বাচনের জন্য বিভিন্ন ইউনিয়ন সরেজমিনে পরিদর্শন, মতবিনিময়, চা চাষে আগ্রহীদের তালিকা প্রস্তুত, মৃত্তিকা নমুনা সংগ্রহ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেন।

কক্সবাজারে চা আবাদ হলে সমুদ্রের নয়নাভিরাম দৃশ্যের সঙ্গে চা বাগানের অপরূপ সৌন্দর্য উপভোগের সুযোগ পাবে পর্যটকরা। যা এ অঞ্চলে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি, দারিদ্র্য বিমোচনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি পর্যটন শিল্পেও নতুন মাত্রা যুক্ত করবে বলে মনে করে সংশ্লিষ্টরা।

চা বোর্ডের বিশেষজ্ঞরা এ অঞ্চলের মাটিতে চা চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা এবং চা চাষে আগ্রহীদের সার্বিক সহযোগিতার কথা তুলে ধরে স্থানীয় উদ্যোক্তা ও আগ্রহীদের চা চাষে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। এছাড়া ক্ষুদ্র পরিসরে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে স্বল্প খরচে, সহজ উপায়ে কিভাবে লাভজনকভাবে চা আবাদ করা যায় সে বিষয়টিও তুলে ধরেন।

 

পরিদর্শন টিমের প্রধান ড. এ কে এম রফিকুল হক জানান, পরিদর্শন শেষে ফিজিবিলিটি স্টাডি রিপোর্ট প্রস্তুতের কাজ চলছে। যার ওপর ভিত্তি করে কক্সবাজার জেলায় ক্ষুদ্রায়তন চা আবাদ সম্প্রসারণের জন্য প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করা হবে।

 

চা বোর্ড সূত্রে জানা যায়, কক্সবাজার জেলার চকরিয়া, রামু এবং সদর উপজেলায় প্রায় এক হাজার একর জমিতে চা চাষের সম্ভাবনা রয়েছে। উক্ত জমি চা আবাদের আওতায় আনা হলে এ অঞ্চল থেকে বছরে প্রায় ১০ লাখ কেজি চা উৎপাদিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here