ইওএস টেক্সটাইলের ৮০ শতাংশের মালিক হবে শাশা ডেনিমস

স্টাফ রিপোর্টার: ইতালীয় কোম্পানি ইওএস টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডকে ১৫ মিলিয়ন ডলার (১২০ কোটি টাকা) অধিগ্রহণের জন্য গত বছর সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) ও শেয়ার ক্রয়-বিক্রয় চুক্তি (এসএসপিএ) স্বাক্ষর করেছিল শাশা ডেনিমস লিমিটেড।

অধিগ্রহণ শেষে ইওএস টেক্সটাইলের ৪০ শতাংশ শেয়ার তালিকাভুক্ত কোম্পানি শাশা ডেনিমসের কাছে। আর বাকি ৬০ শতাংশ শেয়ার শাশা স্পিনিংসের কাছে থাকার কথা ছিল। কিন্তু বর্তমানে শেয়ার ধারণ পরিকল্পনায় পরিবর্তন এনেছে কোম্পানিটির পর্ষদ। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুসারে ইওএস টেক্সটাইলের আরো ৪০ শতাংশ শেয়ার কিনে মোট ৮০  শতাংশে শেয়ারের মালিক হবে তালিকাভুক্ত কোম্পানি শাশা ডেনিমস।  আর বাকি ২০ শতাংশ শেয়ার মালিক থাকবে তালিকাবহির্ভূত কোম্পানি শাশা স্পিনিংসের কাছে।

১২ মিলিয়ন ডলার বা ৯৬ কোটি টাকায় ৮০ শতাংশ শেয়ার কিনবে শাশা ডেনিমস। আইপিও তহবিল থেকে ৩০ কোটি টাকা আর অবশিষ্ট ৬৬ কোটি টাকা কোম্পানির নগদ প্রবাদ থেকে বিনিয়োগ করা হবে।

এ বিষয়ে শাশা ডেনিমসের কোম্পানি সচিব আসলাম আহমেদ খান বলেন, ঢাকা ইপিজেডে শাশা ডেনিমস ও ইওএস টেক্সটাইলের কারখানা প্রায় কাছাকাছি দূরত্বে অবস্থিত। দুই কোম্পানির ব্যবসার ধরনও প্রায় একই ধরনের। ইওএস টেক্সটাইলের কারখানায় পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে, যা ভবিষ্যতে সম্প্রসারণের কাজে লাগানো যাবে।

অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ার অগ্রগতি সম্পর্কে তিনি বলেন, আমরা প্রয়োজনীয় সব ডকুমেন্টসহ অধিগ্রহণ প্রস্তাবটি অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে পাঠিয়েছি। আশা করছি, এ বছরের জুনের মধ্যে আনুষঙ্গিক সব প্রক্রিয়া শেষ করা সম্ভব হবে।

সাভারের গণকবাড়ীতে ঢাকা রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলে (ডিইপিজেড) ১২টি প্লটের ওপর ইওএস টেক্সটাইল মিলসের কারখানা অবস্থিত। ১৯৯৮ সালে ইতালির বিনিয়োগকারীদের উদ্যোগে শতভাগ রফতানিমুখী এ প্রতিষ্ঠানটি গড়ে ওঠে।  বর্তমান  কোম্পানিটির মাসিক উৎপাদন সক্ষমতা ১২ লাখ গজ। তবে বর্তমানে বিদ্যমান সক্ষমতার ৫০ শতাংশ ব্যবহার করছে তারা। কোম্পানিটির বার্ষিক রেভিনিউর পরিমাণ বর্তমানে প্রায় ১৫০ কোটি টাকা।

অন্যদিকে ২০১৭-১৮ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, শাশা ডেনিমসের বর্তমান বার্ষিক উৎপাদন সক্ষমতা ২ কোটি ১৬ লাখ গজ। সর্বশেষ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির সমন্বিত রেভিনিউ হয়েছে ৭৫১ কোটি টাকা, যা এর আগের বছরে ছিল ৬২৫ কোটি টাকা। ২০১৭-১৮ হিসাব বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৫৫ কোটি টাকা, যা এর আগের বছরে ছিল ৫৯ কোটি টাকা।

শাশা ডেনিমস মূলত সব ধরনের ডেনিমজাতীয় কাপড় উৎপাদন করে থাকে। আর অন্যদিকে ইওএস টেক্সটাইল মিলস উৎপাদন করে টুইল কাপড়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here