আন্তর্জাতিক ইকোনমিক্স অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের ব্রোঞ্জ পদক জয়

স্টাফ রিপোর্টার : আবারো দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনল একদল কিশোর-কিশোরি। গত ৭-১৩ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ইকোনমিক্স অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ জাতীয় দলের চার প্রতিযোগী ব্যক্তিগত ব্রোঞ্জ পদক এবং বিজনেস
কেস সলভিং রাউন্ডে দলীয় ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করেছেন।

পদকজয়ীরা হলেন- এসএফএক্স গ্রীনহেরাল্ড ইনটারন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র দর্পণ বড়ুয়া ও ফারিহা জামান প্রমি, সানিডেল স্কুলের ছাত্র সৈয়দ নাজিফ ইশরাক এবং সানবিমস স্কুলের ছাত্র ফারাজ মহিউদ্দিন চৌধুরী। দলনেতারা হলেন ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস
এর লেকচারার আল আমিন পারভেজ এবং ক্যাপস্টোন স্কুল, ঢাকা এর চেয়ারম্যান আক্তার আহমেদ।

এছাড়াও এসএফএক্স গ্রীনহেরাল্ড স্কুলের অপর প্রতিযোগী ইসফার জাওয়াদ ফিনান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ডে
চমৎকার পারফরম্যান্স করেন। প্রথমবারের মতো দেশকে ৫টি ব্রোঞ্জ পদক এনে দিয়েছে এই অলিম্পিয়াড।
আন্তর্জাতিক ইকোনমিক্স অলিম্পিয়াড হলো স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের অর্থনীতি বিষয়ক সবচেয়ে বড়
প্রতিযোগিতা। আন্তর্জাতিক কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন ২০০৭ এর নোবেল বিজয়ী এরিক
মাসকিন।

এরিক মাসকিন বর্তমানে হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ও গণিত বিভাগের প্রধান। এই প্রতিযোগিতায় ২৯
টি দেশ অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড কমিটির মাধ্যমে ২০১৯ সাল থেকে বাংলাদেশ দল
এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে। এবছর দেশব্যাপী বাছাইপর্বের মাধ্যমে প্রায় আটশত প্রতিযোগীর মধ্য থেকে
বাছাই করা হয় সেরা ১০ জনকে। এরপর মাস ব্যাপী প্রশিক্ষণ শেষে সেরা ৫ জন অংশ নেন আন্তর্জাতিক
প্রতিযোগিতায়।

এ আয়োজনটি এবছর কাজাখস্তানে অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও করোনাভাইরাস মহামারীর
কারণে অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতাটি ফাইন্যান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ড, ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড
এবং বিজনেস কেস সলভিং রাউন্ডে বিভক্ত।

বাংলাদেশ দল ফাইনান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ডে ২৯ টি দেশের মধ্যে পঞ্চম স্থান অধিকার করে এবং বিজনেস কেস রাউন্ডে রাশিয়া, কানাডা, আমেরিকা, ভারত, মালয়েশিয়া, ইরান, ইন্দোনেশিয়ার মতো দলকে পরাজিত করে ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে। এবছর প্রতিযোগিতাটির জাজিং প্ল্যাটফর্ম হিসাবে কাজ করেছে protijog.com এবং প্রতিযোগিতাটির মিডিয়া পার্টনার দ্যা ডেইলি স্টার।

বাংলাদেশ ইকোনোমিক্স অলিম্পিয়াড কমিটির নেতৃত্বে থাকা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এবং সমাজকর্মী কাজী
খলীকুজ্জমান আহমদ এ বিজয়ে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন- এই অদম্য তরুণদের হাত ধরেই একদিন গড়ে উঠবে
স্বপ্নের বাংলাদেশ। এছাড়াও তিনি ইভেন্টের অর্গানাজিং কমিটিকেও অভিবাদন জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ দলের এ সাফল্যের ব্যাপারটি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ ইকোনমিক অলিম্পিয়াড কমিটির অর্গানাইজিং
কমিটির প্রেসিডেন্ট তাহসিনুল ইসলাম বলেন- ‘ গত দুইবছর ধরে আমরা এই অলিম্পিয়াড আয়োজন করে আসছি।
এবছরের সাফল্য আমাদের এই প্রচেষ্টাকে আরো সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

এ প্রসঙ্গে কমিটির সমন্বয়ক রাফিদ আবরার বলেন- ' এটি আমাদের দেশের জন্য অনেক বড় একটি অর্জন। আজকে পুরো বাংলাদেশের জন্য এটি একটি উৎসবের মুহূর্ত।‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here