আইপিওতে আসার আগেই জরিমানার কবলে আল ফারুক ব্যাগস

স্টাফ রিপোর্টার : প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে আসার আগেই জরিমানার কবলে পড়েছে আল-ফারুক গ্রুপের কোম্পানি আল ফারুক ব্যাগস লিমিটেড। আইপিও সংক্রান্ত আইন পাবলিক ইস্যু রুলসের বিভিন্ন ধারা লংঘন করার দায়ে এই কোম্পানি, তার দুই ইস্যু ম্যানেজার ও নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জারিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার, ২৩ জুন অনুষ্ঠিত পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর ৭২৯তম কমিশন সভায় জরিমানার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিএসইসি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

পাবলিক ইস্যু রুলস লংঘন করায় আল ফারুক ব্যাগসকে ১০ লাখ টাকা, ইস্যু ম্যানেজার বিএমএসএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেডের প্রত্যেককে ১০ লাখ টাকা ও নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান আর্টিজান চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টসকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জানা গেছে, ক্যাপিটাল ইস্যু রুলস অনুসারে আইপিওর আবেদনকারী কোম্পানিকে আবেদনের সাথে করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড পরিপালন সংক্রান্ত সনদ জমা দিতে হয়। বিএসইসির স্বীকৃত বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান এই সনদ দিতে পারে। তবে কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদনের নিরীক্ষক আর করপোরেট গভর্নেন্স কোড পরিপালন সনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানকে হতে হয় ভিন্ন। কিন্তু আল ফারুক ব্যাগ এই শর্ত পরিপালন করেনি।

জানা গেছে, কোম্পানিটির আর্থিক প্রতিবেদন নিরীক্ষা করেছে আর্টিজান চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টস। আবার একই প্রতিষ্ঠান করপোরেট গভর্নেন্স কোড পরিপালন সনদ দিয়েছে, যা আইপিওর আবেদনের সঙ্গে জমা দেওয়া হয় বিএসইসিতে। ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্ব জমা দেওয়া নথিপত্র সঠিক কি-না এবং তা আইনের শর্ত পরিপালন করে জমা দেওয়া হয়েছে কি-না তা প্রত্যায়ন করা। এ ক্ষেত্রে আলোচিত দুই মার্চেন্ট ব্যাংক সব তথ্য সঠিক বলে ঘোষণাপত্র দিয়েছিল।  এর মাধ্যমে ইস্যু ম্যানেজার, নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ইস্যুয়ার কোম্পানি পাবলিক ইস্যু রুলসের ১৬ ধারা এবং কমিশনের প্রজ্ঞাপন নং- এসইসি/সিএমআরআরসিডি/২০০৬-১৫৮/১৩৫/এডমিন লংঘন করেছে।

আইনের এসব বরখেলাপের সঙ্গে চারটি প্রতিষ্ঠানেরই দায়িত্বহীনতা থাকায় বিএসইসি কোম্পানি, ইস্যু ম্যানেজার ও নিরীক্ষককে জরিমানা করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here