অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধি জিকিউ বলপেনের

স্টাফ রিপোর্টার : জিকিউ বলপেনের অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধির কারণ জানতে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এই কমিটি গঠন করেছে।
কমিশনের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোঃ রেজাউল করিম বিষয়টি একটি অনলাইন নিউজপোর্টালকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, জিকিউ বলপেনের অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধির কারন অনুসন্ধানে ২ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। বিএসইসির তদন্ত কমিটিতে কমিশনের সহকারি পরিচালক মো. শহিদুল ইসলামকে প্রধান করে দুই সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্য হলেন সিডিবিএলের অ্যাপলকেশন সাপোর্টের প্রধান মঈনুল হক।
রেজাউল করিম আরও বলেন, কোম্পানিটির অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধিতে ১০টি বিও হিসাবকে সন্দেহজনক মনে করা হচ্ছে। ওই ১০টি বিও হিসাবে জিকিউ বলপেনের ৩০ লাখ শেয়ার লেনদেন করা হয়েছে। যে কারনে ওই বিওগুলো জব্দ (ফ্রিজ) করা হয়েছে। তদন্ত কার্যক্রম শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিওগুলোর সব কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। জিকিউ বলপেনের গত তিন মাসের বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত ১৬ জুন থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার দর শেয়ার দর ছিল ৬৬.১০ টাকা। যা গত দুই মাসে কিছু বেশী সময়ে ১৭৪ টাকা দাম বেড়েছে।
বুধবার দিনশেষে জিকিউ বলপেনের শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ২৪০.৩০ টাকায়। অর্থাৎ গত ২ মাস কয়েকদিন বেশি সময়ের ব্যবধানে শেয়ারটির দর বেড়েছে ১৭৪.২০ টাকা বা ২৬৪ শতাংশ। ঢাকা এক্সচেঞ্জ কমিশন ডিএসইর পক্ষ থেকে শেয়ারের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে দাম বাড়ার তেমন কোন কারন নেই বলে গত ২৪ আগস্ট জানিয়েছে জিকিউ কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here