আসল বয়স নিজেই ফাঁস করলেন আফ্রিদি

স্টাফ রিপোর্টার : এতদিন সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির বয়স ক্রিকেটভক্তদের কাছে ছিল এক অদ্ভুত রহস্য। এবার সেই রহস্যের পর্দা নিজেই ফাঁস করেছেন তিনি। এই সপ্তাহেই প্রকাশিত নিজের আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’এ আসল বয়স সম্পর্কে তিনি সত্যটা প্রকাশ করেছেন। তার বর্তমান বয়স আসলে যা বলা হয় তার চেয়ে ৫ বছর বেশি।

অফিসিয়াল রেকর্ড অনুযায়ী আফ্রিদির জন্ম ১৯৮০ সালের ১ মার্চ। কিন্তু তার আত্মজীবনীতে বলা হয়েছে তার জন্ম ১৯৭৫ সালে। আর এতেই আফ্রিদির সেই বিখ্যাত বিশ্ব রেকর্ড তথা মাত্র ১৬ বছর বয়সে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করার কীর্তি এখন হুমকির মুখে। কারণ সেসময় তার প্রকৃত বয়স ছিল ২১ বছর।

১৯৯৬ সালের অক্টোবরে আফ্রিদি শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করে সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেন। এটা ছিল তার দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক ম্যাচ। দ্রুততম সেঞ্চুরির ওই রেকর্ড বহুদিন অক্ষুণ্ণ ছিল। ১৭ বছর পর ওই রেকর্ড এখন সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্সের দখলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ৩০ বলে সেঞ্চুরি করে রেকর্ড নিজের করে নিয়েছিলেন এই বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান।

নিজের আত্মজীবনীতে আফ্রিদি লিখেছেন, ‘আমি তখন (রেকর্ড গড়া ম্যাচের সময়) ১৬ নয়, ১৯ বছর বয়সী ছিলাম। আমি ১৯৭৫ সালে জন্মগ্রহণ করেছি। তাই হ্যাঁ, কর্তৃপক্ষ আমার বয়স ভুলভাবে লিখেছিল।’

কিন্তু, আফ্রিদির এই দাবিও ঠিক নয়। কারণ, ১৯৭৫ সালে জন্মগ্রহণ করে থাকলে তার আসল বয়স হবে ২০ কিংবা ২১। তাছাড়া তার প্রকৃত বয়সও হবে ৪৩ কিংবা ৪৪ বছর, কিন্তু ৩৯ বছর কিছুতেই নয়। তার মানে ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর তিনি যখন অবসরের ঘোষণা দেন তখন তার বয়স ছিল ৪০ কিংবা ৪১ বছর, ৩৬ বছর নয়।

আফ্রিদির এই সত্য স্বীকার তার দখল থেকে বিশ্ব রেকর্ড কেড়ে নিতে পারে। কেননা, এতদিন সবচেয়ে কম বয়সে ওয়ানডে সেঞ্চুরি করার রেকর্ডের মালিক ছিলেন তিনি। এখন আইসিসি যদি আফ্রিদির বয়স ইস্যুতে ব্যবস্থা নেয়, তাহলে এই রেকর্ড যাবে আফগান ব্যাটসম্যান উসমান ঘানির দখলে। ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে যখন ১৪৩ বলে ১১৮ রানের ইনিংস খেলেন এই  আফগান, সেসময় তার বয়স মাত্র ১৭ বছর ২৪২ দিন।

সবচেয়ে কম বয়সে ওয়ানডে সেঞ্চুরি হাঁকানোদের তালিকায় এমনকি বাংলাদেশের তামিম ইকবালেরও পরে থাকবেন আফ্রিদি। কেননা এতদিন তালিকার পাঁচে থাকা তামিম ২০০৮ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ১৯ বছর ২ দিন বয়সে ১৩৬ বলে ১২৯ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছিলেন। এছাড়া ১৮ বছর ১২১ দিন বয়সে সেঞ্চুরি করেছিলেন সাবেক পাকিস্তানি ওপেনার ইমরান নাজির।

যদিও ১৮ বছর ৩১২ দিন বয়সে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে তালিকার চারে আছেন আরেক পাকিস্তানি ওপেনার সেলিম এলাহি। তবু এক জায়গায় তিনি সবার চেয়ে আলাদা। ১৯৯৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বসেন। এই রেকর্ড এখনও অটুট।

নিজের আসল বয়স ফাঁস করে আরও একটা রহস্যের কিনারা করেছেন আফ্রিদি। আর তা হলো, তার বারবার অবসর নাটক। এই কারণে তুমুল সমালোচিত ও হাসির খোরাক হতে হয়েছে তাকে। অনেকে আবার এটাও বলছিলেন, এত অল্প বয়সে কেন অবসর নিচ্ছেন তিনি। কিন্তু এবার পরিস্কার এটা নিশ্চিত হওয়া গেল ওই বয়সের কারণেই এভাবে অবসর নাটক করতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here